৭ম শ্রেণির ১৫ সপ্তাহের এসাইনমেন্ট কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা


শিক্ষার্থী বন্ধুরা তোমাদের জন্য নিয়ে এলাম ৭ম শ্রেণির ১৫ সপ্তাহের এসাইনমেন্ট কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা ২০২১। তোমরা এখানে সম্পূর্ণ ৭ম সপ্তম শ্রেণি কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ পেয়ে যাবে।

সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী বন্ধুরা তোমরা কি তোমাদের ১৫তম সপ্তাহের কর্ম ও জীবনমুখি প্রশ্নগুলো দেখেছো। যদি না দেখে থাকো তাহলে চলো প্রশ্নগুলো আগে দেখে নিই তারপর নমুনা উত্তরটি অনুসরণ করি।

কর্ম ও জীবনমুখি ৭ম শ্রেণির ১৫তম সপ্তাহের এসাইনমেন্ট ২০২১ প্রশ্ন



৭ম শ্রেণির এসাইনমেন্ট কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা ১৫তম সপ্তাহ উত্তর

এসাইনমেন্ট শুরু

ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে আমরা সুন্দর সুন্দর ঘর সাজানোর জিনিস তৈরি করতে পারি। আমরা অনেক টাকা খরচ করে অনেক বড় বড় শপিংমল থেকে অনেক দামি দামি শোপিচ কিনে ঘর সাজিয়ে থাকি। কিন্তু আমরা লক্ষ করলে দেখতে পাবো সেগুলো কিন্তু খুব সাধারণ জিনিস দিয়ে তৈরি। এবং সেগুলো হাতে তৈরি। তাই আমরা যদি একটু চেষ্টা করি তাহলে নিজেরাই আশেপাশের জিনিসগুলো দিয়ে অনেক সুন্দর সুন্দর শোপিচ তৈরি করতে পারি।

ঘর সাজানোর জন্য আমি যে সকল জিনিস তৈরি করতে পারি তার একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা নিচে দেওয়া হলোঃ

  • অপ্রয়ােজনীয় বােতলের উপর লেইস, সুতা দিয়ে বােতল শােপিস। 
  • কাচের বােতলের ভেতরে ম্যাজিক বাবল, পাথর, নিজের পছন্দের কোন চরিত্র দিয়ে উইশিংবটল। 
  • অব্যবহার্য শাড়ি, ওড়না, বেডশিট দিয়ে টেবল ম্যাট। 
  • পুরানাে কাচের জাগ বা কাচের বয়ামে টুনি বাল্ব ভরে আলাে জ্বেলে দিলে হয়ে উঠে রঙিন শােপিস। 
  • পুরানাে জামদানী, নকশি করা কোন কাপড়ের টুকরােকে ফ্রেমিং করে বানাতে পারি অসাধারণ ওয়ালপিস। 
  • টয়লেট পেপার রােল দিয়ে পেন্সিল হােল্ডার। 
  • টিস্যু পেপার রােল দিয়ে ওয়াল আর্ট। 
  • প্লাস্টিকের বােতল দিয়ে কিটি টব।
  • টয়লেট পেপার রােল দিয়ে প্যাঁচা। 
  • টিস্যু রােল দিয়ে ঘর সাজানাের ডিআইওয়াই। রঙধনুর সবকটি রঙ দিয়ে ঘরকে সাজানাে যায় রঙিন আলােয়।


উপরের উল্লেখিত জিনিস তৈরির ক্ষেত্রে সৃজনশীলতা থাকার প্রয়ােজনীয়তা অনস্বীকার্য। নিজের মেধা-মনন ব্যবহার করে নিত্য-নতুন কোন কিছু তৈরি করার চেষ্টা করা সৃজনশীলতার সাথে সম্পৃক্ত। সৃজনশীলতা বলতে নতুন কিছু সৃষ্টি করা, নতুন উপায়ে কাজ করকে বুঝায়। দৈনন্দিন জীবনে মানুষ অনেক জিনিস ব্যবহার করার পরে ফেলনা হিসেবে ফেলে দেয়। কিন্তু নিজের মেধা ব্যবহার করে চাইলে তা থেকে নতুন কিছু সৃষ্টি করা যায় আর সেই সাথে নিজের সৃজনশীলতার ও বিকাশ ঘটে। যা আমাদের জীবনকে আরও সহজ ও আরামদায়ক করে তােলে।

সৃজনশীলতা বিকাশের কারণে সভ্যতা উন্নত থেকে উন্নততর হচ্ছে। জীবন হচ্ছে নিরাপদ ও আরামদায়ক। সৃজনশীলতার গুণে মানুষ নতুন কিছু করার চিন্তা করে এবং সাধনার ফসল স্বরূপ নতুন কিছু উদ্ভাবন করে। একটা সময় মানুষ ফেলনা জিনিস ফেলে দিতাে। কিন্তু এখন নানা ঘর সাজানাের সামগ্রী তৈরি করছে। ফেলনা জিনিসের রিসাইক্লিং হওয়াতে পরিবেশেরও ক্ষতি হচ্ছে না।

আবার নিজের ঘরে নান্দনিকতা বাড়ছে এবং মনও প্রফুল্ল থাকছে, একঘেয়েমি দুর হচ্ছে। অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করে ঘর সাজানাের জিনিস ক্রয় না করে খুব অল্প সময়ে হাতের কাছে থাকা ফেলনা জিনিস দিয়ে ঘর হয়ে উঠছে রঙিন। আর এসকল নিত্যনতুন উদ্ভাবনের জন্য প্রয়ােজন সৃজনশীলতা, যা আমাদের চারপাশের তাকালেই স্পষ্ট হয়ে উঠে। সভ্যতার উন্নতির জন্য সৃজনশীলতার প্রয়ােজনীয়তা আর বাড়িয়ে বলার অপেক্ষা রাখে না।


এসাইনমেন্ট শেষ

আরো পড়ুনঃ

  • ১৫ সপ্তাহের ৭ম শ্রেণির কর্ম ও জীবনমুখি শিক্ষা এসাইনমেন্ট উত্তর

বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্টটি তোমাদের অনেকটা ব্যবহারিক ভিত্তিক। তাই তোমাদের অ্যাসাইনমেন্টটি করতে মজা লাগার কথা। তোমরা উক্ত অনুর মডেল গুলি কাদা বা কাঠি দিয়ে বানাতে পারো। 

১৫ সপ্তাহের বিজ্ঞান অ্যাসাইনমেন্ট সপ্তম শ্রেণি

আমাদের সাথে থাকতে আমাদের ফেজবুক পেজে লাইক দিয়ে রাখো। অথবা আমাদের এসাইনমেন্ট ফেজবুক গ্রুপে যুক্ত হতে পারো। এসাইনমেন্টগুলো ভিডিও আকারে পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যনেলটি সাবসক্রাইব কর।


আমাদের ইউটিউব লিংক
https://www.youtube.com/channel/UCea_DqYt9NegZgE5A-mdIag
ফেজবুক পেজ (সমস্যা ও সমাধান)
https://web.facebook.com/shomadhan.net
assignment all class (6-9)📝📝
https://web.facebook.com/groups/287269229272391

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন